Shop - কানযুল ঈমান ও তাফসীর নূরুল ইরফান

-8%
কানযূল ঈমান ও নূরুল ইরফান

কানযুল ঈমান ও তাফসীর নূরুল ইরফান

৳ 830.00

কানযুল ঈমান’র মূল লেখক :- আ’লা হযরত ইমাম মুহাম্মদ আহাম্মদ রেযা খাঁন বেরলভী (রহ.
তাফসীর নূরুল ইরফান’র মূল লেখক :- হাক্বীমুল উম্মত আল্লামা মূফতী আহমদ ইয়ার খাঁন নঈমী (রহ.)

বঙ্গানুবাদক :- মাওলানা মুহাম্মদ আব্দুল মান্নান

Share This Book

FacebookTwitterPinterestLinkedinEmail

Description

কানযুল ঈমান ও তাফসীর নূরুল ইরফান ১ম ও ২য় খন্ড

কানযুল ঈমান’র মূল লেখক :- আ’লা হযরত ইমাম মুহাম্মদ আহাম্মদ রেযা খাঁন বেরলভী (রহ.
তাফসীর নূরুল ইরফান’র মূল লেখক :- হাক্বীমুল উম্মত আল্লামা মূফতী আহমদ ইয়ার খাঁন নঈমী (রহ.)
বঙ্গানুবাদক :- মাওলানা মুহাম্মদ আব্দুল মান্নান

মুদ্রিত মূল্য : ৯০০ টাকা,

বিক্রয় মূল্য : ৮৩০ টাকা।

“কানযুল ঈমান” কেন পড়বেন?

এর উত্তরের জন্য আপনাকে পুরো “কানযুল ঈমান ও তাফসীর নূরুল ইরফান” আদ্যোপান্ত পড়তে হবেনা; বরং কয়েক পৃষ্ঠা পড়লেই পাঠক নিজেই উপলব্ধি করতে পারবেন “কানযুল ঈমান” পড়ার মাহাত্ম্য । “কানযুল ঈমান” এর প্রারম্ভেই সমাজে প্রচলিত কিছু তাফসীরগ্রন্থের অমূলক এবং মনগড়া তাফসীরের সাথে “কানযুল ঈমান” তাফসীরের পার্থক্য এবং শ্রেষ্ঠত্ব ও বিশুদ্ধতা তুলে ধরা হয়েছে। বিশ্বের খ্যাতনামা ইসলামিক স্কলারগণও “কানযুল ঈমান” র শ্রেষ্ঠত্ব স্বীকার করেছেন।

আল্লাহ পাক স্বয়ং পবিত্র কুরআন মাজিদে ঘোষণা করেন যে এ কুরআন পড়ে কিছু মানুষ হেদায়াতপ্রাপ্ত হবেন, আবার কিছু মানুষ গোমরাহ হবেন। এ গোমরাহ হওয়ার পেছনে প্রধান দায়ী হচ্ছে পবিত্র কুরআনের ভ্রান্ত এবং মনগড়া তাফসীর করা বা পড়া।

বিভিন্ন ভ্রান্ত মতবাদে বিশ্বাসী কিছু লোক তাদের হীন স্বার্থ হাসিলের অপপ্রয়াসে মহাগ্রন্থ আল কুরআনের অনুবাদ এবং তাফসীরের আড়ালে এই উপমহাদেশে ইসলামবিরোধী মতবাদ, ইমান-আকিদার প্রাণস্পন্দন রাসূলে আরাবী সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম’র প্রেম, আহলে বায়ত ও আউলিয়ায়ে কেরামগণের ভালোবাসা সাধারণ মুসলমানদের মন থেকে দূরে সড়িয়ে দিয়ে এক অনৈসলামিক সমাজ কায়েমের স্বপ্ন বুনছিল, এমন সময় আ’লা হযরত আহমদ রেযা খাঁন (রা.) “পবিত্র কানযুল ঈমান” রচনার মাধ্যমে বাতিলদের সকল অপপ্রয়াসকে ধূলিসাৎ করে ইসলামের বিশুদ্ধতাকে হেফাজত করেন।

বর্তমানে আমাদের সমাজে ঈমান বিধ্বংসী কিছু তাফসীরগ্রন্থ প্রচলিত আছে, যেখানে নবীয়ে পাক সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম’র শান-মানকে গৌণ করা হয়েছে, আবার কিছু তাফসীর গ্রন্থে মহান আল্লাহ পাকের শানে এমন বিকৃতভাষ্য দেওয়া হয়েছে,যদ্দরুন ঐ সকল নামধারী মুফাচ্ছীরগণের ঈমানতো নষ্ট হয়েছে-ই; সেই সাথে সাধারণ মুসলমানের অমূল্য সম্পদ ঈমানও হুমকির মুখে পড়েছে।

কিন্তু, আ’লা হযরত কৃত ”কানযুল ঈমান” নামক এ তাফসীরগ্রন্থে মহামহিম আল্লাহর শানে শব্দচয়নে করা হয়েছে সর্বোচ্চ সতর্কতা, নবীয়ে পাক সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম’র যথোপযুক্ত মর্যাদাপূর্ণ শব্দচয়নে রয়েছে মূখ্য বিষয়। “কানযুল ঈমান” নাতিদীর্ঘ একটি তাফসীরগ্রন্থ। এর সহজ এবং সাবলীল ভাষা হৃদয়ঙ্গম করতে একজন সাধারণ মানুষও সক্ষম হবেন।

কানযুল ঈমান ও তাফসীর নূরুল ইরফান” উর্দু ভাষায় রচিত। এটিকে বাংলা ভাষায় অনুবাদ করেন বাংলাদেশের খ্যাতনামা ইসলামী বইয়ের অনুবাদক মাওলানা আবদুল মান্নান। অনুবাদক অত্যন্ত সহজ এবং প্রাঞ্জল ভাষায় এটি অনুবাদ করেন। এর সহজতা এবং প্রাঞ্জলতা যেকোনো সাধারণ পাঠককেও সহজেই আকৃষ্ট করবে। এবং পাশাপাশি ভূল ও গোস্তাখীপূর্ণ তাফসীর সমূহ চিন্থিত করে ঈমানকে হেফাজত করতে পারবে।

Additional information

Weight 5 kg

7 reviews for কানযুল ঈমান ও তাফসীর নূরুল ইরফান

  1. salam

    Medim

  2. 5 out of 5

    Mohammed Abu Tyub

    আপনি আমরা কুরআন শরীফ পড়ি, কিন্তু কুরআন শরীফের অন্তরে প্রবেশ করতে পারি কি ??? কোরআন শরীফের অন্তরে প্রবেশ করার জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ কিতাব “কানযুল ঈমান ও তাফসীরে নুরুল ইরফান”।

  3. ফয়েজ আহমেদ

    এখানে কি ৩০ পারা আছে ??

    • ipipasa.admin

      ৩০ পাড়ার সম্পূর্ণ অনুবাদ ও তাফসীর

  4. 5 out of 5

    Md. Faysal Alam

    কানযুল ঈমান ও তাফসীর নূরুল ইরফান ১ম ও ২য় খন্ড।
    কানযুল ঈমান’র মূল লেখক :- আ’লা হযরত ইমাম মুহাম্মদ আহাম্মদ রেযা খাঁন বেরলভী (রহ.
    তাফসীর নূরুল ইরফান’র মূল লেখক :- হাক্বীমুল উম্মত আল্লামা মূফতী আহমদ ইয়ার খাঁন নঈমী (রহ.)
    বঙ্গানুবাদক :- মাওলানা মুহাম্মদ আব্দুল মান্নান

    বিশ্ব বিখ্যাত ইসলামিক স্কলার, দার্শনিক ড.আল্লামা ইকবাল বলেছেন, আ’লা হযরত যখন কিছু লিখেন বা বলেন তা খুব চিন্তা ভাবনা করেই লিখেন এবং তার উপর তিনি স্থীর থাকেন। এ পর্যন্ত আ’লা হযরত তাঁর কোন লিখনি বা ফতােয়া থেকে রুজয়াত করেছেন তার কোন নজীর নাই। (মাক্কালাত ই ইয়াউমে রেযাঃ ৩য় খন্ড, লাহাের)

    মিশরের আল আযহারের বিশ্ব বিদ্যালয়ের জরিপ অনুযায়ী পবিত্র আল কুরআনের অনুবাদের মধ্যে সর্বশ্রেষ্ট অনুবাদ হলো “কানযুল ইমান”। ১৯১১ সালে উর্দূ ভাষায় অনুদিত এই গ্রন্থটি ইংরেজি, ফরাসি, জার্মানি, হিন্দি, ডাচ, বাংলা, পশতু, সিন্ধী, গুজরাটি, কেরেলা, জাপান সহ প্রাচ্য ও পাশ্চাত্যের একুশটি ভাষায় অনুবাদ হয়েছে। করাচি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ডক্টর মজিদুল্লাহ কাদেরী কানযুল ইমানের উপর সর্বপ্রথম পি.এইচ.ডি করেন। প্রফেসর শাহ ফরিদুল হক প্রথম ইংরেজি অনুবাদ করেন যা পৃথিবীর সকল দেশে সমাদৃত হয়েছে। আমেরিকার কলোম্বিয়া বিশ্ববিদ্যালয় থেকে শুরু করে ইউরোপের স্বনামধন্য বিশ্ববিদ্যালয়, ভারত ও পাকিস্তানের সকল প্রতিষ্ঠিত বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে ইমাম আহমদ রেজার কানযুল ইমান ও আহমদ রেজার জীবন কর্মের বিভিন্ন দিক নিয়ে পি.এইচ.ডি-এমফিল হয়েছে। কুরআন শরিফের অনুবাদ সাহিত্যে কানযুল ইমানের শ্রেষ্ঠত্বের ওপর সমসাময়িক বিভিন্ন অনুবাদকের কুরআন শরীফের ১৫টি আয়াতের অনুবাদ নিয়ে তুলনামূলক ব্যাখ্যা বিশ্লেষণের একটি সংক্ষিপ্ত বিবরনি বাংলা অনুবাদের ভূমিকাতে সংযুক্ত রয়েছে যেখানে অন্যান্য অনুবাদের চেয়ে কানযুল ইমানের শ্রেষ্ঠত্ব প্রমাণিত হয়েছে। সদ্য ওফাত প্রাপ্ত চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনিয়র প্রফেসর ডক্টর মুহাম্মদ রশিদ কানযুল ইমানের অনুবাদ পড়ে অভিভূত হয়ে অনুবাদক কে সৈয়েদুল মুতারাজ্জামিন উপাধি দিয়েছিলেন।

    আল্লাহ পাক স্বয়ং পবিত্র কুরআন মাজিদে ঘোষণা করেন যে এ কুরআন পড়ে কিছু মানুষ হেদায়াতপ্রাপ্ত হবেন, আবার কিছু মানুষ গোমরাহ হবেন।এ গোমরাহ হওয়ার পেছনে প্রধান দায়ী হচ্ছে পবিত্র কুরআনের ভ্রান্ত এবং মনগড়া তাফসীর করা বা পড়া। বর্তমানে আমাদের সমাজে ঈমান বিধ্বংসী কিছু তাফসীরগ্রন্থ প্রচলিত আছে, যেখানে নবীয়ে পাক সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম’র শান-মানকে গৌণ করা হয়েছে, আবার কিছু তাফসীর গ্রন্থে মহান আল্লাহ পাকের শানে এমন বিকৃতভাষ্য দেওয়া হয়েছে,যদ্দরুন ঐ সকল নামধারী মুফাচ্ছীরগণের ঈমানতো নষ্ট হয়েছে-ই; সেই সাথে সাধারণ মুসলমানের অমূল্য সম্পদ ঈমানও হুমকির মুখে পড়েছে। কিন্তু, আ’লা হযরত কৃত ”কানযুল ঈমান” নামক এ তাফসীরগ্রন্থে মহামহিম আল্লাহর শানে শব্দচয়নে করা হয়েছে সর্বোচ্চ সতর্কতা, নবীয়ে পাক সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম’র যথোপযুক্ত মর্যাদাপূর্ণ শব্দচয়নই ছিল মূখ্য বিষয়। আসুন একটি অনুবাদ দেখি-

    সর্বপ্রথম কয়েকজন অনুবাদকের সূরা আদ দোহা’র ৭ নং আয়াতের অনুবাদ দেখি-

    ★ এবং পেয়েছি তোমাকে পথভ্রষ্ট; অতঃপর পথ প্রদর্শন করেছেন -শাহ আব্দুল কাদের (নাউযুবিল্লাহ)
    ★ এবং তোমাকে পথ-অনভিজ্ঞ পেয়েছেন।অতঃপর হেদায়েত দান করেছেন-মওদূদী(নাউযুবিল্লাহ)
    ★তিনি আপনাকে পেয়েছেন পথ হারা,অতঃপর পথ প্রদর্শন করেছেন -মা’আরেফুল৷, কুরআন(নাউযুবিল্লাহ)
    ★এবং তিনি তোমাকে বিপদগামী পাইয়াছিলেন,পরিশেষে পথ প্রদর্শন করিয়াছেন-গিরিশচন্দ্র(নাউযুবিল্লাহ)

    উপরোক্ত প্রায় সকল অনুবাদকই ضَآلًّا
    শব্দকে পথভ্রষ্ট, পথহারা ইত্যাদি দ্বারা অনুবাদ করেছে ।যা মোটেই যথাযথ অনুবাদ নয়। রাসূলূল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহী ওয়া সাল্লামের পবিত্রতম শানে পথভ্রষ্ট, পথহারা, পথঅনভিজ্ঞ, বিপদগামী ইত্যাদি বলা সুষ্পষ্ট বেয়াদবীই।তদুপরি, নবী কারীম صلى الله عليه وسلم’র শানে পথভ্রষ্ট, পথহারা, বিপদগামী ইত্যাদি শব্দ ব্যবহার করলে নবীগনের মর্যাদা ‘নিষ্পাপ হওয়া’ কে অস্বীকার করে।কিন্তুু প্রথমোক্ত অনুবাদকগন সেটার পরোয়া করেন নি।

    এবার আসুন দেখি আলা হযরত ইমাম আহমেদ রেজা রহঃ এর অনুবাদ দেখি-

    এবং আপনাকে স্বীয় প্রেমে আত্নহারা পেয়েছেন,তখন নিজের দিকে পথ দেখিয়েছেন। সূরা আদ দোহা-৭।
    কানজুল ইমান(আলা হযরত রহঃ)

    নবী কারীম সাল্লাল্লাহু আলাইহী ওয়া সাল্লামের শানে পথভ্রষ্ট শব্দটি আসলেই মারাত্নক, ইমানবিধ্বংসী আসুন কুরআনুল কারীমের অন্য একটি আয়াত দেখি-
    “তোমাদের সাহীব(সাথী) না পথভ্রষ্ট হয়েছেন, না বিপথে চলেছেন।” (সূরা আন নাজম-২)

    শাহ আব্দুল কাদের, মওদুদী, গিরিশচন্দ্র ও মা’আরেফুল কুরআনের অনুবাদ কতটা ভয়ংকর। যা আমাদের ইমানকে ধ্বংস করতে যথেষ্ট। আলা হযরত রহঃ অনুবাদটা কতোই বিশুদ্ধ ও শালীনতার খুবই নিকটবর্তী। আল্লাহ আমাদের সকলের ইমান ও আমলকে বাতিলের হাত থেকে হেফাজত করুক(আমিন)

    “কানযুল ঈমান ও তাফসীর নূরুল ইরফান” উর্দু ভাষায় রচিত। এটিকে বাংলা ভাষায় অনুবাদ করেন বাংলাদেশের খ্যাতনামা ইসলামী বইয়ের অনুবাদক মাওলানা আবদুল মান্নান। অনুবাদক অত্যন্ত সহজ এবং প্রাঞ্জল ভাষায় এটি অনুবাদ করেন। এর সহজতা এবং প্রাঞ্জলতা যেকোনো সাধারণ পাঠককেও সহজেই আকৃষ্ট করবে। এবং পাশাপাশি ভূল ও গোস্তাখীপূর্ণ তাফসীর সমূহ চিন্থিত করে ঈমানকে হেফাজত করতে পারবে।

  5. 5 out of 5

    Mohammad Iftekharul Islam

    রিভিউ লেখক – মুহাম্মদ ইফতিখারুল ইসলাম
    #আই_পিপাসা_রিভিউ_প্রতিযোগিতা_২০২১

    মুসলমানদের ধর্মীয় গ্রন্থ পবিত্র আল কুরআন সকল মানুষের জন্য হেদায়ত স্বরূপ। সামাজিক, পারিবারিক, রাষ্ট্রীয় থেকে শুরু করে জীবনের সকল কিছু সমস্যার সমাধান কোরআন শরীফের মধ্যে রয়েছে।আর এই আল কুরআনের প্রসিদ্ধ এবং সর্বাধিক পরিচিত অনুবাদ হচ্ছে “কানযুল ইমান ও তাফসীর নূরুল ইরফান”।

    পবিত্র আল কোরআনের অসংখ্য অনুবাদ রয়েছে তার মধ্যে অন্যতম হচ্ছে ” কানযুল ইমান”।ইসলাম ধর্মের মধ্যে অনুপ্রবেশকারী কাফের, মুনাফেক ও ইহুদীদের এজেন্ট বাস্তবায়নের লক্ষে নিজস্ব মতবাদের ভিত্তিতে আল কোরআনের অনুবাদ করেছে। ইহুদী, খৃষ্টানরা ইসলাম ধর্মে সরাসরি ক্ষতি করতে না পেরে আল কোরআনের ভ্রান্ত অনুবাদ করে মুসলমানদের ইমানকে দূর্বল করার চেষ্টা করছিলো। আর সে সময়ে মানুষের ইমানকে রক্ষা করার জন্য ইমামে আলা হযরত, আল্লাহ তায়ালা এবং তার রাসূল (সঃ) এর প্রতি মহব্বত নিয়ে অনুবাদ করেন “কানযুল ইমান”।

    বর্তমান আমাদের সমাজে প্রচলিত কিছু অনুবাদক ও তফসিরগ্রন্থ রয়েছে, যেগুলোতে মহান আল্লাহ তায়ালার শানে বিকৃতি ভাষ্য দেওয়া হয়েছে,ও প্রিয় নবী (সঃ) এর শান- মানকে গৌণ করা হয়েছে, সাথে অশালীন শব্দ প্রয়াগ করে তারা তাদের মূল লক্ষ বাস্তবায়ন করার চেষ্টা করছিলো। কিন্তু, আ’লা হযরত কৃত ” কানযুল ইমান ” নামক অনুবাদে মহান আল্লাহ তায়ালার শানে সতর্কতার সাথে শব্দচয়ন করা হয়েছে এবং প্রিয় নবী (সঃ) এর শান-মানে যথোপযুক্ত মর্যাদাপূর্ণ শব্দচয়ন করা হয়েছে।আর তাই ” কানযুল ইমান ” এবং ভ্রান্ত অনুবাদকের পার্থক্য নির্ণয় করার জন্য অবশ্যই “কানযুল ইমান ” পড়া উচিত।

    ‘ কানযুল ইমান ‘ ও তাফসীর ‘নূরুল ইরফান ‘
    উর্দু ভাষায় রচিত, এটিকে বাংলা ভাষায় অনুবাদ করেন বাংলাদেশের অন্যতম লেখক ও অনুবাদক মাওলানা আব্দুল মান্নান। অনুবাদক অত্যন্ত সহজ ভাষায় এটি অনুবাদ করেন।এর সহজতা যেকোনো সাধারণ পাঠক সহজেই অনুধাবন করতে পারবেন।

    ‘#কানযুল_ ইমান’ ও #তাফসীর_নূরুল_ ইরফান ‘ ১ম ও ২য় খন্ড।
    কানযুল ইমানের মূল লেখক – আ’লা হযরত ইমাম আহমদ রেযা খান বেরলভী (রহ.)।
    তাফসীর নূরুল ইরফানের মূল লেখক – আল্লামা মুফতি আহমদ ইয়ার খান নঈমী (রহ.)।
    অনুবাদক – মাওলানা আব্দুল মান্নান
    মুদ্রিত হাদিয়া – ৯০০
    বিক্রয় – ৮৩০

  6. কাজী

    আস্সালামু আলাইকুম, ১ম ও ২য় খন্ড কি একত্রে পাওয়া যাবে? আপনারা কি হোম ডেলিভারি করেন নাকি কুরিয়ারযোগে কিতাব পাঠান? আমি ক্রয় করতে ইচ্ছুক।

    • ipipasa.admin

      ওয়ালাইকুমুস সালাম। জ্বি ইনশা-আল্লাহ কুরিয়ার করে পাঠানো যাবে। ০১৯৯৭৯৮০৭৪৪ কল দিবেন।

  7. 5 out of 5

    mmgaus2003 (verified owner)

    Tnx a lot ipipasha


Add a review

You may also like…

You've just added this product to the cart:

Call Now Button